রবিবার, জুলাই ২৫, ২০২১

গ্রীন টি

গ্রীন টি

image_pdfimage_print

বিশুদ্ধ পানির পরে সবচেয়ে উপকারী পানীয় কি। গ্রীন টি বা সবুজ চা।

সবুজ চা আসলে প্রস্তুত করার পরে সবুজ থাকে না (একমাত্র জাপানীজ মাচ্যা ছাড়া কারন তার সবুজ গুড়া চা পাতা ব্যবহার করে আর প্রস্তুতকালীন ব্রাশ দিয়া ঘইষা ফেনানীভ কইরা দেয়)। পরিস্কার কাপে নিলে গ্রীন টি (বাংলায় সবুজ চা কেমুন জানি শোনায় তাই গ্রীন টি কমু)সোনালী দেখায় হালকা হলুদাভ টোন সহ।

গ্রীন টি তে এ্যন্টি অক্সিডেন্ট আর বিভিন্ন উপকারী ফ্ল্যাভনয়েড থাকে যা সুস্বাস্থ্যে অবদান রাখে রাখছে রাখতে পারে।

Icahn School of Medicine at Mount Sinai Hospital এর খাদ্যপুস্টি গবেষক Christopher Ochaner PhD. বলেন “It’s the healthiest thing I can think of to drink”

প্রথমেই কওয়া লাগে এইটা ওজন কমাইতে সাহায্য করেঃ অনেকেই দাবী করে, কেউ কেউ রেজাল্টও পাইছে  আর বৈজ্ঞ্যানিক ভাবে প্রমানীতও হইছে। এখন দেখা যাক আসলে কেমনে হয় কামটা!

গ্রীন টিতে ক্যাফেইন আছে এককাপে ২৪ থাইকা ৪০মিলিগ্রাম (কফিতে এরচেয়ে বেশী পাওয়া যায় ১০০ থাইকা ২০০ মিলিগ্রাম) পরিমানে কম হইলেও মৃদু প্রভাব রাখে। ক্যাফেইন চর্বি গলানোর স্টিমুল্যান্ট হিসাবে স্বীকৃত, ব্যায়াম কালে এইটা বুস্টার হিসাবে কাজ করে। এর চাইতে উল্লেখ্য হইতাছে এতে থাকা অন্যান্য উপকারি এ্যন্টি অক্সিড্যান্ট গুলি, নাম ‘ক্যাটেচিনস’ Catechins, এতে প্রধানটার নাম ইজিসিজি (EGCG Epigallocatchin Gallate) এইটা মেটাবলিজম বুস্ট করে। মনে রাখতে হইব, এর উপকার পাইতে গেলে গ্রীন টির সাথে সাথে গ্রীন টি এক্সট্রাক্ট সাপ্লিমেন্ট হিসাবে নিতে হইব। আর “সাথে ব্য্যয়াম করতে হইব”।

ফ্যাট সেল ধ্বংশ করতে গেলে তা আগে জমানো জায়গা থাইকা ভাইংগা আনতে হইব রক্তপ্রবাহে, গ্রীন টি পান করলে তাতে থাকা ইজিসিজি শরীরে নোরেপিনেফ্রিন Norepinephrine নামের হরমোন নিঃস্বরন বাড়ায় এই নোরেপিনেফ্রিন তোমার শরীরের নার্ভাস সিস্টেম/স্নায়ূ তন্ত্ররে শরীরের জমানে ফ্যাট সেল রে ভাংগতে কয়। ফ্যাট সেল ভাইংগা রক্ত প্রবাহে আসে যা এনার্জী আর তা অন্য সেল যেমন মাসল সেল ধইরা কামে লাগায়! (হুশ কইরা মাম্মা লোগ রক্তে বেশী ফ্যাট সেল মানে কার্ডিও বা হৃদয় ঘটিত সমস্যা হইতে পারে, তাই ব্যায়াম চালু)।

বাজারে পাওয়া যে কোন ফ্যাট বর্নিং প্রডাক্ট এর উপকরন দেখলে কোন না কোন চা এর নাম পাইবা। পরীক্ষা কইরা দেখা গেছে যেই মাম্মালোগ ব্যায়ামের সাথে সাথে গ্রীন টি এক্সট্রাক্ট নিছে তাগো রেজাল্ট ১৭% বেশী ভালো হইছে যারা নেয় নাই তাদের থাইকা। এইটা প্রমানীত যে গ্রীন টি এক্সট্রাক্ট কাম করে।

আরেকটা আট সপ্তাহ ধইরা চলা সমীক্ষায় দেখা গেছে এই গ্রীন টি ব্যায়াম চলা কালীন ও বিশ্রাম পর্যায়ে একই রকম কাজ করে।

মানুষের শরীর চলার জন্য জ্বালানীর প্রয়োজন হয়, তা ক্যালরী যা শরীর
বিভিন্ন ভাবে যোগান দেয়, এই ক্যালরী পুইড়াই শরীর চালায়, যখন ঘুমাও বা আমার মত কিছুই করনা তখনো ক্যালরী পুড়তাছে কারন শরীর জ্যন্ত! একজন স্বাভাবিক পূর্ন বয়স্ক মানুষ দিকে ২০০০ ক্যালরী পোড়ায়, দেখা গেছে গ্রীন টি এই ক্যালরী পোড়ানো ৩-৪% থাইকা ৮% পর্যন্ত বৃদ্ধি করে, তার মানে ২০০০ হাজার ক্যালরী ওয়ালা মাম্মার ৬০ থাইকা ৮০ ক্যালরী অতিরিক্ত পোড়াইতে পারে, এক ঘন্টা দ্রুত হাঁটলে (ঘন্টায় ৪ মাইল) ৪১৫ ক্যালরী খরচা হয়!

Ms. Kris Gunners, BSc. Authoritynutrition.com লেখছেন তিন মাস ধইরা চলা এক পর্যবেক্ষনে দেখা গেছে ৬০ জন স্থুল লোক যারা গ্রীন টি এক্সট্রাক্ট নিতাছিল তারা ৭.৩ পাউন্ড ওজন কমাইতে পারছে আর ১৮৩ ক্যালরী বেশী পোড়াইতে পারতাছিল প্রতিদিন! মনে রাখতে হইব একই রেজাল্ট সবার বেলায় নাও হইতে পারে একেকজনের মেটাবলিজম একেক রকম।

গ্রীন টি পানে ক্ষুধামান্দ দেখা দেয়, খাইতে রুচি নাই ওজন কমব এইটা বুঝতে রকেট সায়েন্স লাগে না।

Ms. Lizzie Parry, Daily mail online এর 5Feb15 সংখ্যায় লেখছে, গ্রীন টি তোমার ওজন কমাইতে সাহায্য করতে পারে কিন্তু তার রেজাল্ট পাইতে গেলে তোমারে প্রতিদিন কমপক্ষে সাত কাপ চা পান করতে হইব।

সমীক্ষায় মোট ১৪ জন অংশ নিছিল যাদের গড় বয়স ২১, দুই ভাগে ভাগ হইয়া একভাগ ৫৭১ মিলিগ্রাম ডি-ক্যাফিনেটেড গ্রীন টি এক্সট্রাক্ট ক্যাপস্যুল নিছিল আর বাকী সাত জন ‘প্ল্যাসিবো’ বা ‘সুগার পিল’ নিছিল। যারা ক্যাপ্স্যুল নিছিল তারা, যারা নেয় নাই তাদের চাইতে ১.৬৩% ক্যালরী পোড়াইছে আর ওজন কমাইতে পারছে। খেয়াল রাখতে হইব এরা এ্যাক্টিভ মানে ব্যায়াম/শাররীক পরিশ্রম করা মাম্মালোগ। এবং তাগো ফ্যাট বার্নিং প্রসেস ২৫% বৃদ্ধি পাইছিল।

Dr. Justin Roberts পরিচালিত এই সমীক্ষায় তার মন্তব্য “It is known that green tea as a drink can have numerous health benefits as it contains a relatively high amount of an ingredient called EGCG , However, to get the dosage required may require close to six or seven cups of green tea a day the 571 mg capsuled tested contained a daily EGCG dose of 400 mg.
In essence our study showed that the use of green tea extract could potentially help people to lose weight it combined with exercise.

কম্বাইন্ড উইথ এক্সারসাইজ, আমার মূল বক্তব্য এইটাই, শুধু গ্রীন টি খাইলেই আশানুরুপ রেজাল্ট পাইবা না, সাথে শাররীক পরিশ্রম চালু রাখতে হইব। The journal of the International Society of Sports Nutrition. এ ছাপা হইছিল সমীক্ষাটা।

আমার প্রিয় ওয়েবসাইট WebMD কয় “দুঃক্ষিত পৃথিবীতে এমন কোন খাবার বা পানীয় নাই তা গ্রহনে শরীরের চর্বি গইল্যা যাইব আর ওজন কইমা যাইব! তবে, এইটা চিনিযুক্ত পানীয়ের খুব ভালো আর উপকারী সাবস্টিটিউট হইতে পারে, বছরে গৃহীত সমপরিমান কোক, পেপসী অথবা অন্য কোন চিনিযুক্ত পানীয় গ্রহনে যতটুকু ক্যালরী শরীরে ঢুকবো তার চাইতে ৫০,০০০ কম ক্যালরী ঢুকব গ্রীন টি পানে। যা কিনা ১৫ পাউন্ড চর্বির সমান”!!! খালি গ্রীন টিতে মধু, চিনিমিনি দিয়া উপকারের সাথে ছিনিমিনি খেইলো না!

Dr. Ochner বলেন, এছাড়াও গ্রীন টির অন্যান্য উপকারিতা দেখা গেছে, মগজএ রক্ত চলাচল বাড়ায়, ‘আলযাইমার’ রোগের কারন যেই ‘প্লাক’ তা কমাইতে সাহায্য করে, ডায়াবেটিস, ব্লাড প্রেসার, কলেস্টেরল নিয়ন্ত্রনে সাহায্য করে গ্রীন টির ‘ক্যাটেচেসিন’।

উক্কে ভালো জিনিষের ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে, সবার জন্য সব কিছু না, গ্রীন টি গ্রহনে মাথাব্যাথা, নার্ভাসনেস, ঘুমাইতে অসুবিধা, বমি, ডায়ারিয়া, চিড়চিড়াভাব, অনিয়মিত হার্টবিট, বুকজ্বলা, কানে রিঙ্গিং মানে টিনেনাইটিস, খিঁচুনি হইতে পারে, আর বেশী দেখা যায় গ্রীন টি খাবার থাইকা আয়রন শোষন করতে বাধা দেয় তার ফলশ্রুতি এ্যানেমিয়া দেখা দিতে পারে। এখন কথা হইতাছে কতটুকু গ্রীন টি গ্রহন করা যাইতে পারে নিরাপদে, এইটা প্রত্যেকের বেলাই ভিন্ন হইতে পারে। ট্রায়াল এ্যান্ড এরর ছাড়া উপায় দেখি না।

সবাই পার তবুও একটু পন্ডিতি কইরাই যাই। গ্রীন টি বানানের সবচেয়ে সঠিক উপায়। আমি তাপমা্ত্রার সায়েন্টিফিক মাপ দিমু না, পাতা জ্বাল দিবা না, পাতা তিন মিনিটের বেশী গরম পানিতে রাখবা না। সহজ উপায়, ফুটানো পানি নেও কেটলীতে, কাপের উপরে ছাকনিতে পাতা রাইখা তাতে পানি ঢালতে পার। অথবা টি-ব্যাগ বা স্টিপার থাকলে তা ফুটন্ত পানিতে ডুবাইয়া ৩ মিনিট পরে তুইলা ফালাও। একটু ঠান্ডা হইতে দেও, লেবু দিতে পার। চিনি আর মধু দিলে মজা লাগবো কিন্তু উপকারের সাথে বোনাস অপকার আইস্যা পড়বো, চিনি!! স্টার্চ!!

সবকিছু বাদ দিলেও এতে থাকা ‘থিয়ানিন’ শরীরে শান্ত ভাব আনে!! তাই সারাদিনের কাউ কাউ শেষে বিকালে এককাপ গ্রীন টি হইতেই পারে! ইট হেল্পস!

FavoriteLoadingপ্রিয় পোস্টের তালিকায় নিন।

About The Author

মন্তব্য করুন