শনিবার, অক্টোবর ২০, ২০১৮

সিয়াম এবং স্বাস্থ্যঃ হৃদবিকলতার রোগীদের রোযা

সিয়াম এবং স্বাস্থ্যঃ হৃদবিকলতার রোগীদের রোযা

হার্ট ফেইলিউর বা হৃদবিকলতার রোগীরা রোযা থাকলে কি কোন সমস্যা হয়?

ক্রনিক হার্ট ফেইলিউরের রোগীদের ওপর রোযার প্রভাব সম্পর্কে আসলে তেমন কোন তথ্য নেই। সম্প্রতি সৌদি আরবে গবেষকগণ ক্রনিক হার্ট ফেইলিউরের রোগীদের ওপর একটি পর্যবেক্ষণ করেছেন। তাদের দেখার বিষয় ছিল যাদের ক্রনিক হার্ট ফেইলিউর বা হৃদ বিকলতা আছে, তারা রোযা থাকলে কি কোন সমস্যা হয়?

তারা ২০১৭ সালে একটি সৌদি হাসপাতালের কার্ডিয়াক সেন্টারে ২৪৯ জন হার্ট ফেইলিউরের রোগীর ওপরে এই পর্যবেক্ষণ করেন। তারা সকলেই রমযান মাসে রোযা রেখেছিলেন এবং হাসপাতালের বহির্বিভাগে দেখাতে এসেছিলেন।

ফলাফলে দেখা যায় ২৪৯ জনের মধ্যে ২২৭ জন (৯১%) সারা মাস রোযা রেখেছেন এবং তাদের মধ্যে ২০৯ জন (৯২%) কোন রকম সমস্যা অনুভব করেন নি কিংবা হার্ট ফেইলিউরের অবনতি হয়নি। তবে বাকী ১৮ জনের (৮%) শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ার কারণে তাদের রোযা ছেড়ে দিতে হয়েছে এবং বাড়তি চিকিৎসা গ্রহণ করতে হয়েছে। বিশ্লেষণে দেখা যায় অবনতিশীল হার্ট ফেইলিউরের রোগীরা আসলে অন্যদের চেয়ে ওষুধ এবং পথ্য ব্যবহারের ক্ষেত্রে তুলনামূলকভাবে বেশী উদাসীন ছিলেন এবং তাদের হার্ট ফেইলিউরের প্রকৃতি ভিন্নরকম ছিল।

গবেষকদের সিদ্ধান্ত হচ্ছে, অধিকাংশ ক্রনিক হার্ট ফেইলিউরের রোগীর পক্ষে রোযা রাখা সম্ভব। যারা ওষুধ এবং পথ্য নিয়মিত ব্যবহারের ক্ষেত্রে উদাসীন, তারা রোযা রাখলে আরও অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন। অতএব কোন ক্রনিক হার্ট ফেইলিউরের রোগী রমযান মাসে রোযা রাখতে আগ্রহী হলে অবশ্যই তাকে চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে পরামর্শ মোতাবেক চলতে হবে।

তথ্যসূত্রঃ Abazid RM, Khalaf HH, Sakr H et al. Effects of Ramadan fasting on the symptoms of chronic heart failure. Saudi Med J. 2018;39(4):395-400.

 

image_print
FavoriteLoadingপ্রিয় পোস্টের তালিকায় নিন।

About The Author

মন্তব্য করুন