বুধবার, অক্টোবর ৯, ২০১৯

খাবারে নুন আর হৃদরোগ

খাবারে নুন আর হৃদরোগ

image_pdfimage_print

(১ম পর্ব)

প্রেশার ধরা পড়ার পর থেকে ডাক্তার কাঁচা নুন খেতে বারন করছেন। আমি তাই নুনটাকে একটু ভেজে  নিয়ে খাই, প্রমীলাবাহিনীর বৈকালিক আড্ডায় সূত্রপাত ঘটালেন সরমাপিসি। না না, ভাজা নুনও প্রেশারে চলে না, তুমি বরং আমার মতো সৈন্ধব নুন খাওয়া শুরু করে দাও, ফরমান জারি করলেন বেলামাসি। একমনে পান সাজতে সাজতে মা বলে উঠলেন, না, না কোন নুনই চলবে না ব্লাড প্রেশার বাড়লে। নীল তো তাই বলে। অমনি সবাই মিলে রে রে করে উঠলেন উচ্চকণ্ঠে। শুরু হল হট্টগোল। মেয়েদের আড্ডায় একটা সময় যা হয়। সবাই বলে যান, কেউ শোনেন না অন্যের কথা।

বাণীপিসির গলাটা চড়েছে সবচাইতে বেশী, আরে, রাখো তোমার ডাক্তারদের কথা! নুন ছাড়া আবার মানুষ  খেতে পারে?  যতদিন বাঁচব নুন খেয়ে যাব, যে যাই বলুক, যেন উচ্চকণ্ঠে খেয়াল গাইছেন বেলামাসি। গোলমালটা একটু থিতিয়ে আসতেই সুরভিত জর্দা- ঠাসা একটা পান মুখে পুরে একটু রসস্থ হলেন সরমাপিশি। মৃদু রস ছুয়ে গেল আড্ডাকেও । সুন্দরবনের বাঘের পেটে এত নুন ধোকে নোনা জল খেয়ে খেয়ে, জলদা পাড়ায় দেখেছি গণ্ডার চেটে খাবে বলীখানে ওখানে নুনের ঢিপি। কোথায় ওদের তো কিছু হয় না। বাঘ, সিংহ, গণ্ডারের প্রেশার বাড়ে বলে তো শুনুনি! কেও কখনও শুনেছ প্রেশার বেড়ে হার্ট অ্যাটাক  হয়েছে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের? আরও এক প্রস্থ রস ঢাললেন বেলামাসি। হোঃ হোঃ করে হেসে উঠলেন সবাই। পান মুখে হাসতে হাসতে বষম খাচ্ছেন মা, হাসির দাপটে কাঁপছে গোটা বাড়িটা।

নুন, রক্তচাপ আর হৃদরোগ

খাবারদাবারে নুনের মাত্রা স্বাভাবিকের চাইতে একটানা বেশি হলে রক্তচাপ বাড়ার আশঙ্খাও বাড়ে। রক্তচাপের প্রাবল্য একটানা চলতে থাকলে করোনারি ধমনির ভিতর চর্বি জমে, বেড়ে যায় করোনারি হৃদ্ররোগের ঝুঁকি। একই ভাবে মস্তিস্ক (Brain) র সেরিব্রাল ধমনীর দেওয়াল ফুলে বাড়ে সেরিব্রাল স্ট্রোকের আশঙ্খা।

হৃদরোগ বিশেষজ্ঞরা এখন মনে করছেন, দিন পাঁচ গ্রামের মতো নুন বা সোডিয়াম ক্লোরাইড আমাদের শরীরের পক্ষে যথেষ্ট। এর চাইতে বেশি নুন বেশিদিন শরীরে ঢুকলে নানা ধরনের রোগভোগের আশঙ্খা বাড়বে, বাড়বে ওইসব রোগের নানা জটিলতার ঝুঁকি। চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা তাই কম বয়স থেকেই মন নুনের খাবারে রপ্ত হবার পরামর্শ দিচ্ছেন বহুকাল ধরে।

গুন যতই কম গাই না কেন, আমরা বাঙালীরা নুন যে অনেক বেশি খাই তা আর নতূন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। বিশেষজ্ঞদের হিসেব, এ দেশের মানুষ গড়ে দিনে নুন খান ১০ থেকে ১৫ গ্রাম। ভাতের পাতে নুন, ঝালনুনতেল কটকটে ঝোল-ঝাল। পেয়ারায় নুন, শশাতে নুন, স্যালাতে নুন, ডিমে নুন, সেদ্ধতে নুন, নুন আচারে ,চাটনিতে মুখশুদ্ধিতে। নিমকিতে নুন, ভাজায় নুন, নুন ভুজিয়া-মুড়ি-বাদামে। নানাভাবে প্রয়োজনের চাইতে অনেক বেশি নুন ঢোকে আমাদের শরীরে।

নুন মানে সোডিয়াম ক্লোরাইড, তা সে নুন কাঁচা হোক বা ভাজা। সাদা বস্তার নুন, প্যাকেটের নুন, আয়োডিন সমৃদ্ধ নুন, বিটনুন, কর্কচনুন বা সৈন্ধব লবণ যাই হোক, সব নুনেই রয়েছে সোডিয়াম ক্লোরাইড। সোডিয়াম ক্লোরাইড থাকা  সোডিয়াম শরীরে বেশি ঢুকলেই শরীরে একটানা বেশি ঢোকা তাই ক্ষতিকর। বেশি নুন খেলে শুধু রক্তচাপ বাড়ে না, বাড়ে শরীরের কোষের বাইরের জলের পরিমাণ দেখা দেয় আরও নানা শারীরিক সমস্যা।

বেশি নুন খাওয়ার অভ্যাস যে হৃদরোগের প্রকোপ বাড়ায়, বাড়ায় নানা ধরনের হৃদজটিলতার ঝুঁকি, এ তথ্য এখন সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত।

লিখেছেন  ডাঃ শ্যামল চক্রবর্তী

FavoriteLoadingপ্রিয় পোস্টের তালিকায় নিন।

About The Author

মন্তব্য করুন